বেকারত্ব ঘোচাতে ফ্রিল্যান্সিং/আউটসোর্সিং এর ভূমিকা

বেকারত্ব ঘোচাতে ফ্রিল্যান্সিং/আউটসোর্সিং এর ভূমিকা

0

বেকারত্ব ঘোচাতে ফ্রিল্যান্সিং/আউটসোর্সিং এর ভূমিকা

বেকারত্বের হার বাড়লেও বাড়ছে না চাকুরীর হার। ফলে বাড়ছে যুবকদের হতাশা ভেঙে যাচ্ছে তাদের মনবল। অনেকেই চেষ্টা করছে সরকারী চাকুরীর আবার চাইছে নিজের প্রতিষ্ঠান। এক্ষত্রে সফলতার মুখ এক কথায় সোনার হরিণ অসম্ভব হলেও পাওয়ার চেষ্টা। সবচেয়ে বড় সমস্যা শিক্ষিত বেকারত্বের পরিমাণ।

basis-it

এদিকে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ফ্রিল্যান্সিং/আউটসোর্সিং যা বেকারত্ব দুরীকরনে এক অনন্য ভুমিকা রাখতে সক্ষম। ১০-১২ বছর লেখা পড়া শেষে যখন ১০-১৫ হাজার টাকার চাকুরী মেলে তখন আমাদের খুশির কমতি থাকে না কিন্তু ফ্রিল্যান্সিং/আউটসোর্সিং এর ক্ষেত্রে মাত্র ৬-৮ মাসের কোর্স করেই এর চেয়ে আশানুরুপ ইনকাম পাওয়া সম্ভব হয়। যাকে ভিত্তি করে বর্তমান সময়ে বাংলাদেশেই গড়ে উঠেছে বিল্যান্সার এবং ফরেক্স ট্রেডিং।

এছাড়াও ইন্টারন্যাশনাল পর্যায়ে রয়েছে ওডেস্ক এবং ফ্রিল্যান্সার ডট কমের মত সাইট, যেখানে পাওয়া যাচ্ছে এদেশের যুবকদের নানা খ্যাতি। বাংলাদেশের অনেক বেকার যুবক মেতে উঠেছে এই পেশায় আবার অনেকেই আজ এ পেশার ভিত্তিতে গড়ে তুলেছে নিজের প্রতিষ্ঠান।

বাংলাদেশ সরকার বেকার যুবকদের এ পেশায় উদ্ভুদ্ধ করার জন্য নিয়েছে নানা কর্মসুচী। শুধু বেকার যুবকদের ক্ষেত্রেই নয় ছাত্র/ছাত্রীরাও তাদের পাঠ্য বইয়ের পাশাপাশি চর্চা করছে নিজেদের কম্পিউটারের দক্ষতা এবং যুক্ত হচ্ছে এই পেশায়।

বৈদেশিক আয়ের ক্ষেত্রে একটি বড় অংশের যোগান দিচ্ছে আউটসোর্সিংবেসিসের নানা পরিকল্পনা এবং নিয়মের মধ্য দিয়ে এই পেশাকে আরো জনপ্রিয় এবং সুবিধা লব্ধ করার জন্য চলছে নানা প্রচেষ্টা যা বেকারত্ব দুরীকরনে এক অনন্য ভুমিকার দাবীদার।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY