ওয়েবের মাধ্যমে সবাইকে কোয়ান্টাম প্রসেসর ব্যবহার করতে দেবে আইবিএম

ওয়েবের মাধ্যমে সবাইকে কোয়ান্টাম প্রসেসর ব্যবহার করতে দেবে আইবিএম

0
ওয়েবের মাধ্যমে সবাইকে কোয়ান্টাম প্রসেসর ব্যবহার করতে দেবে আইবিএমযুক্তরাষ্ট্রের কম্পিউটার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস মেশিনস (আইবিএম) করপোরেশন নিয়ে এল সুখবর। এখন থেকে ওয়েবের মাধ্যমে আইবিএমের তৈরি নতুন প্রজন্মের কোয়ান্টাম প্রসেসর ব্যবহার করতে পারবেন যে কেউ, আর তা বিনা মূল্যেই। এই সুবিধা নিতে অনলাইনে ফরম পূরণ করতে হবে। যেখানে আগ্রহী ব্যক্তির প্রাতিষ্ঠানিক পড়ালেখা এবং কম্পিউটার বিষয়ে দক্ষতার কথা জানাতে হবে। তবে আইবিএমের একজন মুখপাত্র বলেছেন, কম্পিউটার ব্যবস্থার নিরাপত্তার জন্যই আবেদনের প্রক্রিয়াটি রাখা হয়েছে, তবে কম্পিউটারে অনভিজ্ঞ ব্যক্তিরাও এই সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন।
যুক্তরাজ্যের কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের কোয়ান্টাম ইলেকট্রনিকসের অধ্যাপক ক্রিস ফোর্ড বলেন, কার্যকরী কোয়ান্টাম কম্পিউটার তৈরির ক্ষেত্রে একটি ছোট কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছে আইবিএম। এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা এতে উপকৃত হবেন। তবে সর্বসাধারণের জন্য এটি উন্মুক্ত করার মধ্য দিয়ে যে কেউ পদার্থবিজ্ঞানের নতুন এই অগ্রগতির বিষয়ে আগ্রহী হতে উৎসাহিত হবেন।

কম্পিউটার প্রযুক্তির জগতে এক বিপ্লবের নাম ‘কোয়ান্টাম কম্পিউটিং’, যা দেবে এখনকার সাধারণ কম্পিউটারগুলোর চেয়ে অনেক দ্রুতগতিতে কাজ করার সুবিধা। যদিও এই প্রযুক্তি এখনো প্রাথমিক পর্যায়ে আছে, তবু বিশেষজ্ঞরা এটাকে কার্যকর কোয়ান্টাম কম্পিউটার তৈরির ক্ষেত্রে একটি ‘ছোট পদক্ষেপ’ হিসেবেই বলে থাকেন। তবে আইবিএম আশা করে, আগামী দশকেই বর্তমানের চেয়ে ২০ গুণ বেশি ক্ষমতার কোয়ান্টাম প্রসেসর বানানো সম্ভব হবে। তথ্য জমা রাখতে সাধারণ কম্পিউটার যে ক্ষুদ্রকায় ট্রানজিস্টর ব্যবহার করে, তা ০ (অফ) এবং ১ (অন)-এর ভাষা বোঝে। কিন্তু কোয়ান্টাম কম্পিউটার ০ এবং ১ একসঙ্গে যেমন বুঝবে, তেমনি এই দুটি সংখ্যাকে আলাদাভাবেও বুঝবে। গবেষকদের বিশ্বাস, এই পার্থক্যটুকুই এখনকার কম্পিউটারের সীমাবদ্ধতা দূর করতে এবং আরও শক্তিশালী কম্পিউটার তৈরিতে ভূমিকা রাখবে।
আইবিএমের কোয়ান্টাম প্রসেসরটি রাখা আছে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের টিজে ওয়াটসন গবেষণা কেন্দ্রে। কোয়ান্টাম প্রসেসর খুবই সংবেদনশীল, তাই একে বিশেষ রেফ্রিজারেটরের মধ্যে প্রচণ্ড শীতল তাপমাত্রায় রাখা হয়েছে। এই প্রসেসরটি মাত্র ৫ কিউবিটসের (কোয়ান্টাম বিটস)। আগামী দশকে একে ৫০ থেকে ১০০ কিউবিটসে উন্নীত করতে চায় প্রতিষ্ঠানটি। ইউনিভার্সাল কোয়ান্টাম কম্পিউটারে যা ১ লাখ কিউবিটসেরও বেশিতে উন্নীত হবে বলে আশাবাদী আইবিএম।

SHARE

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY